Q/AAbdullahil Hadi

সুদের সাথে সম্পর্ক নাই এমন বিভাগে চাকুরীর বিধান

সুদি ব্যাংকে সুদের সাথে সম্পর্ক নাই এমন বিভাগে চাকুরী করার বিধান। ব্যাংকের চাকুরী হালাল নাকি হারাম? অনেকে বলে ব্যাংকের সুদি ডিপার্টমেন্টে চাকরী করা যাবে না কিন্তু সুদের সাথে রিলেশন নাই এমন সেকশনে জব করা যাবে! এ কথা কি সঠিক?
এ কথা কুরআন-সুন্নাহ দ্বারা দৃঢ়ভাবে প্রমাণিত যে, ইসলামের দৃষ্টতে সুদ, ভয়াবহ ও ধ্বংসাত্মক গুনাহ সমূহের অন্যতম। এটি আল্লাহর ও রাসূলের সাথে যুদ্ধ ঘোষণার শামিল ও অভিসম্পাত যোাগ্য কাজ। সুতরাং সুদি লেনদেন করা, সুদ খাওয়া, সুদ দেয়া, সুদের সাক্ষী থাকা, সুদি ব্যাংকে বা প্রতিষ্ঠানে চাকুরী করা সবই হারাম।

কিন্তু কেউ যদি সুদি ব্যাংকে সরাসরি সুদি কারবারের সাথে যুক্ত না থেকে অন্য কোনও বিভাগে-যেমন: নিরাপত্তা রক্ষী, গাড়ি চালক, পরিচ্ছন্ন কর্মী, পিয়ন অথবা মার্কেটিং, বিজ্ঞাপন ইত্যাদি-বিভাগে চাকুরী করে তাহলেও সে এই হারাম কাজে ‘সহায়তাকারী’ হিসেবে গণ্য হবে। আর ইসলামের দৃষ্টিতে পাপ ও সীমালঙ্ঘনের কাজে সহায়তা করা নিষিদ্ধ। আল্লাহ তাআলা বলেন,

وَتَعَاوَنُوا عَلَى الْبِرِّ وَالتَّقْوَىٰ ۖ وَلَا تَعَاوَنُوا عَلَى الْإِثْمِ وَالْعُدْوَانِ ۚ وَاتَّقُوا اللَّـهَ ۖ إِنَّ اللَّـهَ شَدِيدُ الْعِقَابِ
“আর সৎকর্ম ও আল্লাহ ভীতিতে একে অন্যের সহায়তা কর। পাপ ও সীমালঙ্ঘনের ব্যাপারে একে অন্যের সহায়তা করো না। আর আল্লাহকে ভয় কর। নিশ্চয় আল্লাহ তা’আলা কঠোর শাস্তি দাতা।” (সূরা মায়িদা: ২)

[লাজনা দায়েমা/সৌদি স্থায়ী ফতোয়া বোর্ড]جاء في فتاوى اللجنة الدائمة 15/41 :
( لا يجوز لمسلم أن يعمل في بنك تعامله بالربا ، ولو كان العمل الذي يتولاه ذلك المسلم غير ربوي ؛ لتوفيره لموظفيه الذين يعملون في الربويات ما يحتاجونه ويستعينون به على أعمالهم الربوية ، وقد قال تعالى : ( وَلا تَعَاوَنُوا عَلَى الأِثْمِ وَالْعُدْوَان ) المائدة / 2 )

সুতরাং অর্থ উপার্জনের ক্ষেত্রে আল্লাহকে ভয় করা উচিৎ। কেননা হারাম কর্মের মাধ্যমে উপার্জিত অর্থও হারাম। মহান আল্লাহ তাআলা বিচার দিবসে হাশরের ময়দানে মানুষের আয়-ব্যয়ের হিসেব নিবেন। তাছাড়া হারাম অর্থ দ্বারা জীবিকা গ্রহণ করলে তিনি বান্দার দুআ কবুল করেন না এবং তা দ্বারা নেকির কাজ করলে তা প্রত্যাখ্যান করেন। আল্লাহ ক্ষমা করুন। আমিন।

তাই জেনে বুঝে এমন হারাম চাকুরী করা বৈধ নয়। কেউ না জেনে এমন চাকুরীতে যুক্ত থাকলে অনতিবিলম্বে তা পরিত্যাগ করে হালাল উপার্জনের পথ অনুসন্ধান করা আবশ্যক।

মনে রাখতে হবে, কেউ আল্লাহর ভয়ে হারাম পরিত্যাগ করলে তিনি তাকে অপ্রত্যাশিতভাবে সাহায্য করেন এবং উত্তম বিকল্প দান করেন। আল্লাহ তাআলা বলেন,
وَمَن يَتَّقِ اللَّـهَ يَجْعَل لَّهُ مَخْرَجًا وَيَرْزُقْهُ مِنْ حَيْثُ لَا يَحْتَسِبُ ۚ وَمَن يَتَوَكَّلْ عَلَى اللَّـهِ فَهُوَ حَسْبُهُ ۚ إِنَّ اللَّـهَ بَالِغُ أَمْرِهِ ۚ قَدْ جَعَلَ اللَّـهُ لِكُلِّ شَيْءٍ قَدْرًا
“আর যে আল্লাহকে ভয় করে, আল্লাহ তার জন্যে নিষ্কৃতির পথ করে দেন এবং তাকে তার ধারণাতীত স্থান থেকে রিজিক দেন। আর যে ব্যক্তি আল্লাহর উপর ভরসা করে তার জন্যে তিনিই যথেষ্ট। আল্লাহ তার কাজ পূর্ণ করবেন। আল্লাহ সবকিছুর জন্যে একটি পরিমাণ স্থির করে রেখেছেন।”
(সূরা তালাক/২ ও ৩)

আল্লাহু আলাম।

Show More

Related Articles

Leave a Reply, if you have comments about this post.

Back to top button