Abul Kalam Azad BasharZuma's khutba

রমজানের ফজিলত এবং বরকত

রমজানের ফজিলত এবং বরকত
ড. আবুল কালাম আজাদ বাশার
৯ই এপ্রিল ২০২১ইং জুমা খুৎবা

ইনশাআল্লাহ আমরা আজকে কিভাবে এই রমজান মাসকে উত্তম ভাবে উদযাপন করা যায়, এই রমজানের যাবতীয় ফজিলত বরকত কিভাবে আমরা উদযাপন করতে পারি। সে নিয়ে আমাদের কিছু পরিকল্পনা থাকা উচিত, সে প্রসঙ্গে আমরা বাকি আলোচনা করব, আল্লাহর তৌফিক কামনা করছি।

রমজান হচ্ছে কোরআনের মাস।

এজন্য আমাদের রমজান কোরআনময় হওয়া উচিত। রমজান পুরোটা জুড়েই কোরআন কেন্দ্রিক একটা কর্মসূচি আমাদের নেয়া দরকার। আল্লাহ তাআলা রমজান মাসে কুরআন নাযিল করেছেন তিনি বলেছেন

شَهْرُ رَمَضَانَ الَّذِيَ أُنزِلَ فِيهِ الْقُرْآنُ هُدًى لِّلنَّاسِ وَبَيِّنَاتٍ مِّنَ الْهُدَى وَالْفُرْقَانِ
রমযান মাসই হল সে মাস, যাতে নাযিল করা হয়েছে কোরআন, যা মানুষের জন্য হেদায়েত এবং সত্যপথ যাত্রীদের জন্য সুষ্পষ্ট পথ নির্দেশ আর ন্যায় ও অন্যায়ের মাঝে পার্থক্য বিধানকারী।

আপনাকে কুরানের কাছে যেতেই হবে। স্বর্ণের দিকে তাকালে, স্বর্ণ খাটি না অখাটি এটা বুঝা যায় না। এটা বুঝতে হবে কষ্টি পাথরের সাথে ঘর্ষণ দিতেই হবে। এজন্য যারা স্বর্ণকার তারা হাতে নিয়ে আন্দাজ করতে পারে।

লিখেছেন

Show More

Related Articles

Leave a Reply, if you have comments about this post.

Back to top button