Quotes

রাসূলুল্লাহ (সা:) এর জামা কাপড় পোশাক জনিত সুন্নাহ কি কি?

জামা কাপড় পোশাক পরিধানে সব সময় ডান দিক দিয়ে শুরু করা আর খোলার সময় বাঁ দিক দিয়ে শুরু করা সুন্নাত। মানুষ ছাড়া যত সৃষ্টি আছে, আল্লাহ তাআলা তাদের জন্য পোশাকের একটি কুদরতি ব্যবস্থা রেখেছেন তা আল্লাহ প্রদত্ত। উদ্ভিদের জন্য ছাল-বাকল বা গাছের ছাকল হল তার পোশাক। পশু প্রাণীদের জন্য চামড়া ও চামড়ার ওপরের পশম তাদের পোশাক। যেসব প্রাণী ঠাণ্ডায় বাস করে, তাদের চামড়া এ পরিমাণ মোটা ও পশমবিশিষ্ট হয় যে তাদের দেহের হেফাজত হয়ে যায়। আর যেসব প্রাণী উষ্ণ এলাকায় বাস করে, তাদের পশম কম হয়ে থাকে। কুদরতিভাবে তাদের মধ্যে গরম সহ্য করা এবং উষ্ণ ভূমিতে বিচরণ করার যোগ্যতা বেশি থাকে।

১. প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাদা কাপড় বেশি পছন্দ করতেন।
(মুস্তাদরাক, হাদীস নং-৭৩৭৯)

২. জামা-পায়জামাসহ সকল প্রকার পোশাক পরিধানের সময় ডান হাত ও ডান পা আগে প্রবেশ করানো।
(আবু দাউদ, হাদীস নং-৪১৪১)

৩. পুরুষদের জন্য পায়জামা, লুঙ্গি এবং জামা, জুব্বা ও আবা-কাবা পায়ের টাখনুর উপরে রাখা। টাখনুর নীচে নামিয়ে পোশাক পরিধান করা হারাম।
হুযুর সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেছেন- ‘যে ব্যক্তি টাখনুর নীচে ঝুলিয়ে কোন পোশাক পরিধান করবে, আল্লাহ তা‘আলা কিয়ামতের দিন তার প্রতি রহমতের দৃষ্টিতে তাকাবেন না।
(বুখারী শরীফ, হাদীস নং-৫৭৮৪/ আবু দাউদ হাদীস নং-৪০৯৩, ৪১১৭/ সহীহ ইবনে হিব্বান, হাদীস নং-৫৪৪৭)
বি.দ্র. মোজার হুকুম-এর ব্যতিক্রম।

৪. সাধারণভাবে কাপড় পরিধান করার সময় এই দু‘আ পড়া : (মুস্তাদরাক, হাদীস নং-৭৪০৯)
اَلْحَمْدُ لِلّهِ الَّذِيْ كَسَانِيْ هَذَا وَرَزَقَنِيْهِ مِنْ غَيْرِ حَوْلٍ مِنِّيْ وَلَاقُوَّةْ
এবং নতুন কাপড় পরিধান করে এই দু‘আ পড়া
اَلْحَمْدُ لِلّهِ الَّذِيْ كَسَانِيْ مَا اُوَارِيْ بِه عَوْرَتِيْ وَاَتَجَمَّلُ بِه فِيْ حَيَاتِيْ .
(তিরমিযী, হাদীস নং-৩৫৬০/ ইবনে মাজাহ, হাদীস নং-৩৫৫৭)

৫. টুপি পরা। টুপির উপর পাগড়ী পরা মুস্তাহাব এবং লেবাসের আদব। তবে এটা নামাযের সুন্নাত নয়। টুপি ছাড়া পাগড়ী বাঁধা সুন্নাতের পরিপন্থী।
(আবু দাউদ, হাদীস নং-৪০৭৮)

৬. পাগড়ী বাঁধার পর মাথার পিছন দিকে এক হাত পরিমাণ ঝুলিয়ে রাখা।
(মুসলিম, হাদীস নং-১৩৫৯)

বি.দ্র.- কোন উযর না থাকলে টুপির সাথে সব সময় পাগড়ী পরিধান করবে। শুধু নামাযের সময় পাগড়ী পরার হাদীস পাওয়া যায় না।

৭. বিসমিল্লাহ বলে কাপড় খোলা আরম্ভ করা এবং খোলার সময় বাম হাত ও বাম পা আগে বের করা।
(আমালুল্‌ইয়াওমি ওয়াল লাইলাহ, হাদীস নং-২৭৪/ মুসান্নাফে ইবনে আবী শাইবাহ, হাদীস নং-২৪৯১০)

৮. জুতা প্রথমে ডান পায়ে পরা, অতঃপর বাম পায়ে পরা।
(বুখারী শরীফ, হাদীস নং-৫৮৫৫)

৯. জুতা খোলার সময় প্রথমে বাম পা থেকে অতঃপর ডান পা থেকে খোলা।
(বুখারী শরীফ, হাদীস নং-৫৮৫৫)

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button