Mufti Moinuddin MollikQuotes

কুমারি মেয়ে কি তার পরিবার কে না জানিয়ে, বিয়ে করতে পারবে?

কোনো কুমারি মেয়ে কি তার পরিবার কে না জানিয়ে, বিয়ে করতে পারবে?
ছেলেও যদি দ্বীনের পথে আগ্রিহী হয়, এবং নিজেকে সঠিক পথে রাখার জন্য বিয়ে করার জন্য সিদ্ধান্ত নেয়।
ফ্যামিলি এখন বুঝবেনা বিয়ের গুরুত্ব। বুঝালেও কাজ হবেনা।

(প্রেম/হারাম সম্পর্কে লিপ্ত নেই,তবে একজন অপরজনকে বিয়ের প্রস্তাব জানিয়েছে)

প্রাপ্ত বয়স্ক ছেলে এবং মেয়ে যদি বিয়ে করতে চায়, তাহলে পরিবারের সম্মতি নিয়ে বিয়ে করা আবশ্যক। যদি তারা পরিবারকে না জানিয়ে, নিজেরা নিজেরাই বিয়ে করে নেয়, তাহলে উক্ত বিয়ে জায়েজ হয়ে যাবে। তবে পিতা-মাতাকে না জানিয়ে, তাদের মনে কষ্ট দিয়ে বিয়ে করার ফলে তারা অবশ্যই কবীরা গুনাহগার হিসেবে সাব্যস্ত হবে। কারন পিতা-মাতার মনে কষ্ট দেওয়া কোনো মতেই জায়েজ নেই। যদি তারা পরবর্তীতে বিয়ের ব্যাপারে জানতে পারে এবং মনে কষ্ট পেয়ে অভিশাপ দিয়ে দেয়, তাহলে ভবিষ্যত জীবনে সুখ জিনিসটা হয়তো আর ভাগ্যে মিলবে না। তাই পিতা-মাতাকে না জানিয়ে বিয়ে করা জায়েজ হলেও, তাদের অমতে গিয়ে কিংবা তাদের না জানিয়ে বিয়ে করা কোনো মতেই জায়েজ নেই।

নেক্কার জীবনসঙ্গী এবং তাড়াতাড়ি বিয়ে হওয়ার জন্য বেশি বেশি সালাতুল হাজত এবং তাহাজ্জুদ পড়ে দোয়া করবেন ভাই, আর পরিবারকে বুঝানোর চেষ্টা করবেন। পরিবারের মত অনুযায়ী বিয়ে করুন, ইন শা আল্লাহ, জীবনে অনেক বড় সুখী মানুষ হতে পারবেন, মা বাবার দোয়া ছাড়া জীবনে বড় কিছু হওয়া যায় না, আর সুখ জিনিস তো কল্পনাও করা যায় না।

সূরা ফুরকানের ৭৪ নং আয়াতটি বেশি বেশি পাঠ করবেন,

وَالَّذِينَ يَقُولُونَ رَبَّنَا هَبْ لَنَا مِنْ أَزْوَاجِنَا وَذُرِّيَّاتِنَا قُرَّةَ أَعْيُنٍ وَاجْعَلْنَا لِلْمُتَّقِينَ إِمَامًا
এবং যারা বলে, হে আমাদের পালনকর্তা, আমাদের স্ত্রীদের পক্ষ থেকে এবং আমাদের সন্তানের পক্ষ থেকে আমাদের জন্যে চোখের শীতলতা দান কর এবং আমাদেরকে মুত্তাকীদের জন্যে আদর্শস্বরূপ কর

˹They are˺ those who pray, “Our Lord! Bless us with ˹pious˺ spouses and offspring who will be the joy of our hearts, and make us models for the righteous.”

সূরা আল-ফুরকান – Surah Al-Furqan
(Ayah 77)

উত্তর প্রদানেঃ- মুফতি মুঈনুদ্দীন মল্লিক

Show More

Related Articles

Leave a Reply, if you have comments about this post.

Back to top button